রবিবার, ৩১ মে ২০২০, ০৪:২৯ অপরাহ্ন

নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি:
চাটগাঁ সময় পত্রিকায় চট্টগ্রাম মহানগর সহ বিভাগের আওতাধীন সকল জেলা, উপজেলা এবং কলেজ / বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে । যোগাযোগ : ০১৯৬৫-৬৫২৭৯৬ ।


খাদ্য সহায়তার নামে মানুষ জড়ো না করার আহবান মেয়র নাছিরের

নিজস্ব প্রতিবেদক: সরকারি খাদ্য সহায়তা দ্রুত বণ্টন করা যায়,ততই মঙ্গল। খাদ্য সহায়তা দেয়ার নামে অসচ্ছল মানুষের জড়ো করা যাবে না। তালিকানুয়ায়ী তাদের ঘরে ঘরে পৌঁছায়ে দিতে হবে। এতে কোনো ধরণের গাফিলতি করা যাবে না মর্মে কাউন্সিলরদেরকে সর্তক করেন চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের (চসিক) মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন।

মঙ্গলবার (৩১ মার্চ) চসিক কনফারেন্স হলে কাউন্সিলরদের সঙ্গে তৃতীয় দফার বৈঠকে তিনি এ কথা বলেন।



মেয়র নাছির বলেন, একই ব্যক্তি বারংবার সরকারি খাদ্য সহায়তা না পায়,সেই ব্যাপারে সতর্ক থাকতে হবে। অসচ্ছল ব্যক্তি কোন দলের,কার সমর্থক,কোথায় কার লোক সেই বিবেচনায় না নিয়ে মানবিক বিবেচনায় সরকারি খাদ্য সহায়তা সেই ব্যক্তির ঘরে পৌঁছে দিতে হবে। কারণ এই মহুর্তে মানুষকে বাঁচানো আমাদের নৈতিক দায়িত্ব রয়েছে।
আরো পড়ুন: করোনা থেকে বাচঁতে স্বাস্থ্য বি‌ধি ক‌ঠোরভা‌বে অনুশীলন কর‌তে হ‌বে : : রেজাউল ক‌রিম চৌধুরী
তিনি বলেন, প্রতিটি ওয়ার্ডে বিত্তবান লোক আছে। তারা বিচ্ছিন্নভাবে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ না করে সম্মিলিতভাবে বিলি বণ্টন করলে এলাকার মানুষ অনেক বেশী উপকৃত হবে। এক্ষেত্রে প্রতিবেশীর হক সর্বাগ্রে। তাই কাউন্সিলর এবং বিত্তবান ব্যক্তিদের সঙ্গে সমন্বয় করতে হবে।

বিভিন্ন এজেন্সীর কথা উল্লেখ করে সিটি মেয়র বলেন, আপনারা ইতোপূর্বে অনেক জনগুরুত্বপূর্ণ কাজ করেছেন। এই দুর্যোগের মুর্হতে কাউন্সিলরদের যেভাবে কাজ করার সুযোগ আছে, সেভাবে এখনো সকল কাউন্সিলর দায়িত্ব পালন করছেন না। তাই বলে কেউ করছেন না তাও নয়। একজন জনপ্রতিনিধি হিসেবে মানুষের কাছাকাছি যাওয়ার যে সুযোগ আছে,সেই সুযোগ কাজে লাগাতে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে জনসচেতনতা সৃষ্টি করতে হবে।



সিটি মেয়র বলেন, করোনাভাইরাস একটি সংক্রমক ভাইরাস। এটি ছোঁয়াছে রোগ। এই রোগের প্রতিষেধক হিসেবে এখনো কোনো ওষুধ আবিষ্কার হয়নি। তবে ডাক্তারগণ উপসর্গ দেখে এই রোগের ওষুধ দিয়ে থাকেন। একথা সত্য যে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার গাইড লাইন মেনে চললে ৮০ ভাগ মানুষ এই রোগ থেকে আপনা আপনি ভালো হয়ে যায়। তবে যাদের বয়স ষাটের উর্দ্ধে তাদের জন্য একটু সমস্যায় পতিত হতে হয়।

নগরীতে মশার উপদ্রবের কথা উল্লেখ করে সিটি মেয়র বলেন, মশক নিধন কার্যক্রম জোরদার এবং মশক নিধন শতভাগ নিশ্চিতকরণের ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রীর সুস্পষ্ট নিদের্শনা দিয়েছেন। করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে প্রতি ওয়ার্ডে জীবাণূনাশক পানি ছিটিনোর পাশাপাশি মশা নিধনে লারবিসাইড ওষুধ ছিটানোর জন্য সংশ্লিষ্ঠদের নির্দেশনা দেন মেয়র।
দেশে আরও ৬ রোগী করোনামুক্ত, মোট সুস্থ ২৫ : সেব্রিনা ফ্লোরা
তিনি আরও বলেন, বুধবার থেকে প্রত্যেক ওয়ার্ডে লারবিসাইড ওষুধ ছিটানো হবে। এই কাজে নিয়োজিত কর্মীরা করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে জীবাণুনাশক পানি ছিটানোর ক্ষেত্রে কাউন্সিলরদের পরামর্শ অনুযায়ী কাজ করবেন। এমনকি ওয়ার্ড এলাকায় ঝোপ-ঝাড়সহ মশার প্রজনন স্থানগুলো ধ্বংস করতে হবে।

বৈঠকে ২৯ থেকে ৪১ ওয়ার্ডের কাউন্সিলর, সংরক্ষিত কাউন্সিলররা উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া চসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ সামসুদ্দোহা, সচিব মো. আবু শাহেদ চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।



এদিকে, করোনাভাইরাস প্রতিরোধে ৭ম দিনের মত জীবাণুনাশক পানি ছিটানো অব্যাহত রেখেছে চসিক। নগরীর নিউ মার্কেট থেকে কোতোয়ালী, নতুন ব্রীজ, কাস্টমস মোড় থেকে এয়ারপোর্ট রোড, চট্টেশ্বরী হয়ে গোলজার, পাঁচলাইশ থানা হয়ে মুরাদপুর ও ১০ নং উত্তর কাট্টলী ওয়ার্ডে প্রায় ৫০ হাজার লিটার জীবাণু নাশক পানি ছিটিয়েছে চসিক।

সংবাদটি আপনার ফেসবুকে শেয়ার করুন...













Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


































© All rights reserved © 2019 Chatga Somoy
Design & Developed BY N Host BD